রবিবার, ০৯ অগাস্ট ২০২০, ০৮:১৩ পূর্বাহ্ন

অনলাইনে ক্লাস : শার্শা-বেনাপোলে অভিভাবকদের মাঝে স্বস্তি

এম ওসমান (বেনাপোল) প্রতিনিধি ॥

অনলাইনে পাঠদান শুরু হওয়ায় শার্শা ও বেনাপোলে অভিভাবক ও শিক্ষার্থীদের মধ্যে স্বস্তির সৃষ্টি হয়েছে। দেশে করোনা ভাইরাস মহামারি আকারে ছড়িয়ে পড়ায় ৪ মাসেরও বেশি সময় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো বন্ধ রয়েছে। এ অবস্থায় লেখা পড়া নিয়ে বেশ দুশচিন্তায় ছিলেন অভিভাবক ও শিক্ষার্থীরা। তবে মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পর্যারের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অনলাইনে পাঠদান কার্যক্রম শুরু হওয়ায় তারা অনেকটা চিন্তামুক্ত হতে পেরেছেন।

সংশ্লিষ্ট সুত্রে জানা গেছে, ভয়াবহ করোনার কারনে বর্তমানে সব ধরনের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। আরও কত দিন বন্ধ থাকবে তাও অনিশ্চিত। এ অবস্থায় পরীক্ষা ও লেখাপড়া ভবিষ্যৎ নিয়ে অভিভাবক, শিক্ষার্থী ও শিক্ষক সবাই বেশ চিন্তায় ছিলেন। ক্লাস না হওয়ায় শিক্ষার্থীরাও সেভাবে পড়ালেখা করছিল না। ঠিক এরকম অবস্থায় নাভারন ফজিলাতুন্নেছা মহিলা কলেজ, সরকারি বীরশ্রেষ্ঠ নুর মোহাম্মদ কলেজ, নাভারন ডিগ্রী কলেজ, বেনাপোল কলেজ, লক্ষনপুর স্কুল এন্ড কলেজসহ উপজেলার ২০ টি স্কুল ও কলেজে অনলাইনে পাঠদান শুরু হয়েছে। এতে অভিভাবক, শিক্ষার্থী ও শিক্ষক সবার মাঝে স্বস্তির সৃষ্টি হয়েছে।

নাভারন ডিগ্রি কলেজ অধ্যাক্ষ ইব্রাহিম খলিল ও নাভারন গার্লস স্কুলের প্রধান শিক্ষক মোমিন উদ্দিন বলেন, অনলাইনে যুক্ত হয়ে অনেকেই ক্লাশ করছে। এতে তারা উপকৃত হচ্ছে। তবে উন্নত মোবাইল ও নেট সমস্যার কারনে গ্রামের শিক্ষার্থীরা এর পুরো সুবিধা ভোগ করতে পারছেনা।এ সমস্যা না থাকলে সবাই উপকৃত হতো।

সাইফুর রহমান নামে বেনাপোলের এক অভিভাবক বলেন, আমার মেয়ে এবার এইচএসসি পরীক্ষা দেবে। করোনার কারণে এখনো পরীক্ষা হলো না। কলেজ ও প্রাইভেট দুটোই বন্ধ। এ অবস্থায় সে পড়ালেখাও করছে না। বেশ চিন্তায় ছিলাম। তবে অনলাইনে পড়া-লেখার উদ্যোগ নেওয়ায় কিছুটা হলেও মনে স্বস্তি ফিরেছে।

আরেক অভিভাবক ইয়াছমিন আক্তার বলেন, আমার মেয়ে অনামিকা আফরিন ছোঁয়া এবার জেএসসি পরীক্ষা দেবে। করোনায় স্কুল বন্ধ হওয়ায় তার লেখা পড়া প্রায় বন্ধ। এ অবস্থায় সংসদ টিভি আর যশোরের সিটি কেবল নিয়মিত ক্লাস প্রচার করায় অনেকটা চিন্তা মুক্ত হয়েছি।

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা চৌধুরি হাসান হাফিজুর রহমান বলেন, মহামারি করোনার কারনে শিক্ষার্থীরা যাতে পিছিয়ে না পড়ে, তারা যাতে শিক্ষার মধে‍্যই থাকে সে জন্যই তাদের অনলাইনে ক্লাসের ব্যবস্থা করা হয়েছে। এ ছাড়া সরকারি ভাবে সংসদ টেলিভিশন ও যশোর সিটি ক্যাবলেও ক্লাস প্রচার করা হচ্ছে। আশা করছি শিক্ষার্থীরা এর সুফল ভোগ করবে।

Print Friendly, PDF & Email

Please Share This Post in Your Social Media

কপিরাইটঃ ২০১৬ দৈনিক অন্যদিগন্ত এর সকল স্বত্ব সংরক্ষিত।
Design & Developed BY It Host Seba Mobile: 01625324144
Shares