সোমবার, ০৬ Jul ২০২০, ০৫:৫৪ অপরাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ
করোনাভাইরাসে আরও মারা গেলেন ২৯ জন জালিয়াতির অভিযোগে ৫০ নং ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক পাভেল আহমেদ ছাত্রলীগ থেকে বহিষ্কার। আরও ৪২ জনের প্রাণ কাড়ল করোনাভাইরাস বানিয়াচংয়ে শিক্ষিকার সাথে ইভটিজিং করায় বখাটের কারাদন্ড গজারিয়া উপজেলার প্রাক্তন ছাত্রলীগ ফাউন্ডেশন এর উদ্যোগে নানা কর্মসূচির মাধ্যমে পালিত হল আওয়ামী লীগের ৭১তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী সমাজ সেবক হাজী খায়ের আহামদ’র ৬ষ্ট মৃত্যুবার্ষিকীতে অসহায়দের মাঝে আর্থিক সহায়তা প্রদান ও দোয়া মাহফিল দৈনিক অন্যদিগন্ত’র সহকারী সম্পাদক জাহিদকে হত্যার হুমকি দইখাওয়ার জননন্দীত ইয়াবা জামাই মমিনপুরের রুবেল রংপুরে এ পর্যন্ত করোনায় মৃত্যু ৩৯, আক্রান্ত ২২৪৮ করোনাভাইরাসে আরও ৩৯ জন মৃত্যুর মিছিলে 

এবার ঈদ জামাত হচ্ছে না শোলাকিয়ায়

মোঃ আনোয়ার হোসেন॥
২শ’ ৭০ বছরের ইতিহাসে এবারই প্রথমবারের মতো শোলাকিয়ায় ঈদজামাত অনুষ্ঠিত হচ্ছে না। করোনাভাইরাস সংক্রমণ রোধে ও মুসল্লিদের জীবন ঝুঁকি বিবেচনা করে ঈদগাহ বা খোলা জায়গায় ঈদের জামাত আয়োজনে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে ধর্ম মন্ত্রণালয়। সে প্রেক্ষিতে শোলাকিয়া ঈদগাহে ঈদের জামাত আয়োজন না করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। বৃহত্তম জামাতে হিসাব অনুযায়ী, এবার শোলাকিয়া ঈদগাহে ১৯৩তম ঈদুল ফিতরের জামাত অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল।

কিশোরগঞ্জের জেলা প্রশাসক ও ঈদগাহ পরিচালনা কমিটির সভাপতি মো. সারওয়ার মুর্শেদ চৌধুরী জানান, করোনা ছড়িয়ে পড়া রোধে সারাদেশে খোলা মাঠ ও ঈদগাহে ঈদের জামাতে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। সেই অনুযায়ী ঐতিহাসিক শোলাকিয়া মাঠে ঈদের জামাত না করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। তাছাড়া বর্তমান পরিস্থিতিতে ঈদগাহ কমিটির সভা করাও সম্ভব হচ্ছে না। তবে জাতীয় পর্যায়ে সিদ্ধান্তের প্রেক্ষিতে কমিটির সভাপতি হিসেবে শোলাকিয়ায় ঈদের জামাত হবে না বলে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। কয়েক দিনের মধ্যে এ নিয়ে স্থানীয় কয়েকজন ইমাম-ওলামাদের সঙ্গে মিটিং করা হবে।
সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো জানিয়েছে, প্রতি বছর শোলাকিয়ায় ঈদের জামাত অনুষ্ঠানের জন্য প্রশাসনের পক্ষ থেকে ব্যাপক প্রস্তুতি নেয়া হয়। এজন্যে অন্তত দেড় মাস আগে থেকে মাঠের সংস্কার, নিরাপত্তা ও অন্যান্য প্রস্তুতি শুরু করা হয়। দফায় দফায় প্রস্তুতি সভাও অনুষ্ঠিত হয়। কিন্তু করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে এবার এখন পর্যন্ত কোন প্রস্তুতি সভা করা যায়নি। মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ এবং ধর্ম মন্ত্রণালয় এবার ঈদজামাত উন্মুক্ত স্থানে বড় জমায়েত পরিহার করতে নির্দেশ দিয়েছে। তাই বড় পরিসরে ও উন্মুক্তস্থানে ঈদের জামাত হবে না। সে অনুযায়ী শোলাকিয়ায় ঈদজামাত আয়োজন করা হচ্ছে না।
জানাযায়, ১৭৫০ সাল থেকে কিশোরগঞ্জের ঐতিহাসিক শোলাকিয়া ময়দানে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে। প্রতিষ্ঠার ৭৮ বছর পর ১৮২৮ সালে প্রথম বড় জামাতে এই মাঠে একসঙ্গে ১ লাখ ২৫ হাজার অর্থাৎ সোয়ালাখ মুসল্লি ঈদের নামাজ আদায় করেন। এই সোয়ালাখ থেকে এ মাঠের নাম হয় ‘সোয়ালাখিয়া’, যা উচ্চারণ বিবর্তনে হয়েছে শোলাকিয়া।

কিশোরগঞ্জ জেলা শহরের পূর্বপ্রান্তে নরসুন্দা নদীর তীর ঘেঁষে অবস্থিত প্রাচীন এবং ঐতিহ্যবাহী শোলাকিয়া ঈদগাহ ময়দানে ২০১৬ সালে ঈদুল ফিতরের দিন চেকপোস্টে জঙ্গি হামলার ঘটনা ঘটলেও লাখ লাখ মুসল্লি ঈদজামাতে অংশ নিয়েছিলেন। জঙ্গি হামলা পরবর্তি পরিস্থিতিতেও এখানে বন্ধ হয়নি ঈদজামাত। কিন্তু এবার অদৃশ্য অনুজীব করোনা বদলে দিয়েছে শোলাকিয়া ঈদগাহের ২৭০ বছরের ইতিহাস।

Please Share This Post in Your Social Media

কপিরাইটঃ ২০১৬ দৈনিক অন্যদিগন্ত এর সকল স্বত্ব সংরক্ষিত।
Design & Developed BY It Host Seba Mobile: 01625324144
Shares