বুধবার, ১৯ মে ২০২১, ০৮:৫০ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ
দুর্নীতির রিপোর্ট করায় রোজিনা ইসলাম আক্রোশের শিকার প্রথম আলোর সাংবাদিকের বিরুদ্ধে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের দুর্নীতিবাজদের মামলা স্বাস্থ্যে ১৮শ জনকে নিয়োগ॥ জনপ্রতি ১৫-২০ লাখ টাকা ঘুষ নেওয়ার অভিযোগ নিয়োগ কমিটির দুই সদস্যের সচিবালয়ে পাঁচ ঘণ্টা আটকে রেখে থানায় নেওয়া হলো সাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে ডিএমপির ১১ কর্মকর্তাকে বদলি ও পদায়ন অতিরিক্ত আইজিপি হলেন পুলিশের ৪ কর্মকর্তা ইসরাইলি বর্বর আগ্রাসনের প্রতিবাদে ক্ষোভে উত্তাল বিশ্ব প্রশাসনের নাকের ডগায় রমরমা মাদক পতিতাদরে হাট, নেপথ্যে মানিক ও তারেক মুনিয়ার মামলা নিয়ে পরিবারের অসন্তোস কুমিল্লা-৫ আসনের উপনির্বাচন সাজ্জাদের পক্ষে গনজোয়ার

তদবীর বাণিজ্যে কোটিপতি সেল্ফিবাজ প্রতারক রিয়াজুল!

নিজস্ব প্রতিবেদক:
লেখাপড়া করেছেন নবম শ্রেণী পর্যন্ত। অনলাইন মাধ্যমে বিভিন্ন অনুমোদনহীন প্রতিষ্ঠানের মালিক, সমাজের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠিত ব্যাক্তি দের সাথে সেলফি তোলাই তার নেশা। নিজেকে ক্ষমতাধর সাংবাদিক ও ব্যবসায়ী পরিচয় দিয়ে সচিবালয় সহসরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন দপ্তরে তদবির বাণিজ্য তার মূল টার্গেট। আর এসবের মাধ্যমে কোটি কোটি টাকার মালিক হয়েছেন বরিশালের এক অজপাড়াগাঁয়ের রাজমিস্ত্রি বাবার নবম শ্রেণী পড়ুয়া সন্তান রিয়াজুল ইসলাম শুভ।

মাত্র নবম শ্রেণীতে পড়াশুনা করে একটা কথিত অনলাইন পত্রিকা ‘ডেইলি প্রজন্ম.কম’ এর সম্পাদক ও প্রকাশক হিসেবে পরিচয় দেন তিনি। অনেকেই এই সেলফি বাজ নতুন শুভ কে সমাজের আরেক সাহেদ হিসেবে তুলনা করেন। সেলফি বাজির মাধ্যমে নিজেকে একজন ক্ষমতাধর ব্যক্তি হিসেবে জাহির করেন তিনি। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সূত্র জানায়, সাহেদের মতই বিভিন্ন ভাবে প্রতারণা করে আসছেন রিয়াজুল ইসলাম শুভ।
তার গ্রামের বাড়ি পিরোজপুর জেলার ইন্দুরকানী উপজেলায়। তার বাবা একজন রাজমিস্ত্রী ছিলেন। প্রাতিষ্ঠানিক কোন প্রকার শিক্ষাগত যোগ্যতা ছাড়াই নিজেকে পত্রিকার সম্পাদক প্রকাশক, কখনো সরকার দলীয় নেতা, আবার কখনো ক্ষমতাধর ব্যবসায়ী হিসেবে মানুষের সামনে জাহির করে আসছেন তিনি। সরকারি বেসরকারি প্রতিষ্ঠান, তদবির বাণিজ্যে ও মানুষের সাথে প্রতারণার মাধ্যমে কোটি কোটি টাকার মালিক বনে গেছেন এই অশিক্ষিত সাংবাদিক পরিচয় দেওয়া রিয়াজুল ইসলাম শুভ। জানা গেছে, তিনি সরকারি বেসরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বদলির কনট্রাক নিয়ে থাকেন। এমনকি সচিবকেও বদলির তদবির করেন তিনি।
তদবিরবাজ শুভর নামে রয়েছে বেনামে বিভিন্ন অনুমোদনহীন প্রতিষ্ঠান। যার অস্তিত্ব শুধুই অনলাইন ভিত্তিক।
সমাজের বিভিন্ন শ্রেণীর প্রতিষ্ঠা ও রাজনৈতিক ব্যক্তিদের সাথে সেলফি তুলে সোশ্যাল মাধ্যমে নিজেকে একজন ক্ষমতাধর ব্যক্তি হিসেবে পরিচয় দেন এই রিয়াজুল। উল্লেখযোগ্য কোম্পানীগুলো হলো ট্রিপ এন্ড কেয়ার, ডাক এক্সপ্রেস, রিয়াজিং। ভূয়া সাংবাদিক হিসেবে পরিচয় দিয়ে, তদবির, সহ বিভিন্ন অবৈধ পন্থায় তিনি অর্থ আত্মসাৎ করেছেন।

আর এসব অবৈধ উপায়ে অর্জন করা অর্থ দিয়ে রাজধানীর মোহাম্মদপুর সহ বিভিন্ন এলাকায় তার রয়েছে একাধিক ফ্ল্যাট। প্রথম স্ত্রীর অনুমতি ছাড়াই একাধিক বিয়ে। করোনা সংক্রমনের কিছুদিন আগে রিয়াজুল কিনেছেন ৭০ লক্ষ টাকায় একটি বিলাসবহুল গাড়ি।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বিভিন্ন সূত্রে রিয়াজুল ইসলাম শুভর অসংখ্য অনিয়ম অনৈতিক কাজের তথ্য উঠে আসে জানিয়ে অন্যদিগস্ত একটি সংবাদ পরিবেশনের উদ্যোগ নেয়। ইতিপূর্বেই আগাম প্রোমো হিসেবে ফেসবুক পেজে একটি পোস্ট প্রচার করা হয়।
অভিযোগ রয়েছে, রিয়াজুল ইসলামের বিরুদ্ধে কেউ সংবাদ প্রচার করলে আইনি মাধ্যমে তাদেরকে হুমকি-ধামকি ও ভয়ভীতি প্রদর্শন করেন তিনি। আর এর মধ্যে হিসেবে ব্যবহার করেন অসংখ্য পুলিশ অফিসার ও রাজনৈতিক নেতাদের সাথে তার সেলফি।
অন্যদিগন্ত এর পরবর্তী পর্বে সেলফিবাজ তদবিরবাজ ও প্রতারক রিয়াজুল ইসলাম শুভর সকল অপকর্মের বিস্তারিত বর্ণনা পাঠকের সামনে তুলে ধরা হবে।

Print Friendly, PDF & Email

Please Share This Post in Your Social Media

কপিরাইটঃ ২০১৬ দৈনিক অন্যদিগন্ত এর সকল স্বত্ব সংরক্ষিত।
Design & Developed BY It Host Seba  
Shares