বুধবার, ২১ অক্টোবর ২০২০, ০১:৪৮ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ
হাটহাজারীতে র‌্যাবের অভিযানে ৭ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার আটক  ১ হাটহাজারীতে তাল গাছের বীজ বপন করেছে উপজেলা প্রশাসন শেরপুরে দুই কাউন্সিলর প্রার্থীর সমর্থকদের মাঝে সংঘর্ষ শেয়ারবাজারে লেনদেনের গতি বেড়েছে  সশরীরে হবে ঢাবির ভর্তি পরীক্ষা ট্রাম্প-বাইডেনের চূড়ান্ত বিতর্কে থাকছে মাইক্রোফোন বন্ধের সুযোগ বিশিষ্ট সাংবাদিক শরিফুল ইসলাম খানের মার ইন্তেকাল, বিভিন্ন মহলের শোক ঢাকাস্থ গোপালগঞ্জ সাংবাদিক সমিতির কমিটি গঠন সভাপতি মামুন, সা: সম্পাদক বাবুল, সাংগঠনিক সম্পাদক সোহেল সাত কর্মদিবসেই ধর্ষণ মামলার রায় ওয়ারেন্টভুক্ত আসামী সাংবাদিক নামধারী চাঁদাবাজ জাহাঙ্গীর বাহিনীকে গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে ভুক্তভোগী পরিবারের সংবাদ সম্মেলন

রাজউকের নকশাকারক হামিদ এখন কোটিপতি!

স্টাফ রিপোর্টার॥
রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ রাজউকের উত্তরা জোনের নকশাকারক হামিদ। ১৯৯৮ সালে চাকরি শুরু করেন মাস্টাররোলে। কয়েক বছর না যেতেই স্থায়ী হয় চাকরি। চাকরিতে স্থায়ী হওয়ার পর অনিয়ম আর দুর্নীতিতে হয়ে ওঠেন বেপরোয়া। মোটা অঙ্কের টাকা ছাড়া দেন না নকশা অনুমোদনের ছাড়পত্র। এতে রাতারাতি হয়ে ওঠেন কয়েক কোটি টাকার মালিক।

তার এ বেপরোয়া কাণ্ডে ক্ষুব্ধ ভুক্তভোগীরা। ভুক্তভোগী ও একাধিক সূত্রে জানা যায়, জামালপুর জেলার ইসলামপুরে উপজেলার বেলগাছা ইউনিয়নের মরহুম হাসানুজ্জামানের ছেলে হামিদ ১৯৯৮ সালে মাস্টাররোলে চাকরি শুরু করেন। নকশাকারক হিসেবে পান বেশ পরিচিতি। এরপর থেকেই হয়ে ওঠেন দুর্নীতিতে বেপরোয়া।

ছাড়পত্র অনুমোদনের বিনিময়ে গ্রাহকদের কাছ থেকে হাতিয়ে নেন মোটা অঙ্কের টাকা। টাকা নিলে দেন না ছাড়পত্র। রাতারাতি আঙ্গুল ফুলে কলাগাছ হয় হামিদের অবস্থা। গড়ে তোলেন সম্পদের পাহাড়। তবে বিচক্ষণ হামিদ জ্ঞাত-আয়বহির্ভূত সম্পদের কারণে ফেঁসে না যাওয়ার জন্য সম্পদগুলো করেন স্ত্রী ও আত্মীয়স্বজনের নামে।

অনুসন্ধানে জানা যায়, হামিদ বর্তমানে বসবাস করেছে রাজধানীর দক্ষিণখানের টিআইসি কলোনিতে। সেখানে পাঁচতলা ভবনের একটি ফ্লাট ক্রয় করেন স্ত্রীর নামে। রয়েছে দুটি বিশাল দামের হায়েস গাড়ি। দক্ষিণখান এলাকায় নামে-বেনামে রয়েছে আরো ১০-১২ কাঠা জমি।

এ ছাড়া শ্বশুরবাড়ি গাইবান্ধা ও নিজবাড়ি জামালপুরে রয়েছে নামে-বেনামে কয়েক কোটি টাকার সম্পত্তি। এ প্রসঙ্গে জনতে চাইলে হামিদ বলেন, ঢাকা-শহরে আমার কবর দেয়ার মতো কোনো জমি নাই। ছাড়পত্র দেয়ার নামে টাকা নেয়ার কথাও অস্বীকার করেন তিনি।

হামিদ বলেন, আমার স্ত্রীর নামেও কোনো সম্পত্তি নাই। তবে একটি গাড়ি আছে সেটা লোন নিয়ে কিনেছি।

Print Friendly, PDF & Email

Please Share This Post in Your Social Media

কপিরাইটঃ ২০১৬ দৈনিক অন্যদিগন্ত এর সকল স্বত্ব সংরক্ষিত।
Design & Developed BY It Host Seba Mobile: 01625324144
Shares