শনিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২০, ১০:৩০ পূর্বাহ্ন

শোকের মাতম সৌদিতে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত মোশাররফের বাড়িতে

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥

সৌদি আরবে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত কুমিল্লার মোশাররফ হোসেনের (২৮) বাড়িতে এখন চলছে শোকের মাতম। গত বৃহস্পতিবার (৩ সেপ্টেম্বর) স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ৬টার দিকে মালিককে নিয়ে প্রাইভেটকার যোগে কর্মস্থল থেকে ফেরার পথে সড়ক দুর্ঘটনায় ঘটনাস্থলেই মারা যান গাড়িচালক মোশাররফ। তবে মালিক প্রাণে বেঁচে গেছেন।

নিহত মোশাররফ কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার সদর ইউনিয়নের দিলালপুর গ্রামের মোবারক হোসেনের ছেলে। পরিবারের সদস্যরা তার মরদেহ দেশে ফিরিয়ে আনতে সরকারের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সংসারে সচ্ছলতা ফিরিয়ে আনতে প্রায় আড়াই বছর আগে ধার-দেনা করে সৌদি আরবে পারি জমান মোশাররফ। তার মৃত্যুর খবরে গোটা পরিবার এখন শোকে পাথর। তিনি ছিলেন পরিবারের আয়ের একমাত্র উৎস। তার মৃত্যুতে অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে স্ত্রী ও একমাত্র সন্তান মুজাহিদের ভবিষৎ। এখন শোকাহত স্বজনরা মোশারফের মরদেহের অপেক্ষায় রয়েছেন।

শুক্রবার (৪ সেপ্টেম্বর) দুপুরে মোশারফের গ্রামের বাড়িতে গিয়ে দেখা যায়, তার স্ত্রী, মা, বাবা ও আত্মীয়-স্বজনরা আহাজারি করছেন। মোশাররফের মৃত্যুর খবরে তার বাড়িতে এসে ভিড় করেছেন পাড়া-প্রতিবেশী ও আত্মীয়-স্বজনরা।

নিহত মোশাররফের বৃদ্ধ বাবা মোবারক হোসেন বলেন, সংসারে সচ্ছলতা ফিরিয়ে আনতে প্রায় আড়াই বছর আগে মোশাররফ সৌদি আরবে যায়। দুই মাস আগে ধার-দেনা করে বিদেশে যাওয়ার সব টাকা শোধ করেছে। সবেমাত্র একটু একটু করে সচ্ছলতা ফিরে আসছিল সংসারে। কিন্তু ভাগ্যের কী নির্মম পরিহাস সড়ক দুর্ঘটনায় আমার ছেলে প্রাণ হারালো।

নিহতের ভগ্নিপতি মনির হোসেন বলেন, মরদেহ দেশে আনার জন্য সৌদি আরবে আইনি প্রক্রিয়া চলছে। পরিবারের শেষ ইচ্ছা দেশে এনে যেন মোশাররফের মরদেহ দাফন করা হয়। এ বিষয়ে তারা সরকারের সহায়তা কামনা করেছেন।

স্থানীয় ইউপি সদস্য ইদ্রিস মিয়া বলেন, মোশাররফের মৃত্যুতে আমরা গভীরভাবে শোকাহত। সে অত্যন্ত বিনয়ী ও ভদ্র ছিল। তার মরদেহ দেশে ফিরিয়ে আনতে সরকার দ্রুত পদক্ষেপ নেবে বলে আমরা আশা করি।

Print Friendly, PDF & Email

Please Share This Post in Your Social Media

কপিরাইটঃ ২০১৬ দৈনিক অন্যদিগন্ত এর সকল স্বত্ব সংরক্ষিত।
Design & Developed BY It Host Seba Mobile: 01625324144
Shares