চট্টগ্রামের পাথরঘাটা ওয়ার্ডের ফিসারীঘাট এলাকা মাদকের ভয়াবহ অভয়ারণ্যে পরিণত | অন্যদিগন্ত

শুক্রবার, ২৩ অগাস্ট ২০১৯, ১২:২৫ অপরাহ্ন

চট্টগ্রামের পাথরঘাটা ওয়ার্ডের ফিসারীঘাট এলাকা মাদকের ভয়াবহ অভয়ারণ্যে পরিণত

রিমি সর্দার:-
চট্টগ্রাম মহানগরীর ৩৪ নং সিটি কর্পোরেশন এর কোতোয়ালি থানার আওতাধীন পাথরঘাটার ফিসারীঘাট এলাকা মাদকের ভয়াবহ অভয়ারণ্যে পরিণত হয়েছে।নগরীর ঐতিহ্যবাহী কোতোয়ালি থানার সামান্য অদূরে প্রশাসনের নাকের ডগায় পাথরঘাটা ফিসারীঘাট এলাকায় প্রতিদিন সন্ধার পর যেন মাদকের হাট বসছে।সরকার মাদকের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করলেও ফিসারীঘাট এলাকায় প্রকাশ্যে দেদারছে বিক্রি হচ্ছে চোলাই মদ,ইয়াবা সহ বিভিন্ন প্রকৃতির মাদকদ্রব্য।সারাদেশে মাদক বিরোধী এমন গুরুতর অভিযানের মধ্যেও প্রশাসনের পরোক্ষ মদদে এমন প্রকাশ্যে মাদক ব্যবসা চলছে ফিসারীঘাট এলাকায়।প্রশাসনের কর্তাব্যক্তিগন লোক দেখানো কয়েকবার অভিজান চালালেও প্রকৃত মাদক ব্যবসায়ীরা যেন ধরা ছোঁয়ার বাইরে।স্থানীয় থানার কয়েকজন অসৎ কর্মকর্তার যোগসাজশে উক্ত মাদক ব্যবসায়ীরা তাদের মাদক ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে এলাকাবাসীর এমন অভিযোগ বহু পূরনো।পুলিশ খুঁজে না পেলেও এই মাদক ব্যবসায়ীরা এলাকায় প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়াচ্ছে,চালিয়ে যাচ্ছে তাদের অবৈধ কার্যক্রম।প্রতিদিন সন্ধার আধার নেমে আসার সাথে সাথে হরেক রকমের লোকজন আসা শুরু করে মাদকের আখড়াতে,এরপর সারারাত ব্যাপি চলতে থাকে নেশার আসর।অভিযোগের কেন্দ্রবিন্দুতে আছে ফিসারীঘাটের এক মদের বার।মাদক ব্যবসায়ী অনুপ বিশ্বাস ওই মদের বারের মালিক।”মূলতঃ অনুপ বিশ্বাসের ওই মদের বারটিকে কেন্দ্র করে ফিসারীঘাট হয়ে উঠেছে প্রকাশ্যে মাদকের অভয়ারণ্যে”এলাকাবাসীর অধিকাংশ’ই এমন অভিযোগ করেছেন।২৪ ঘন্টা খোলা ওই মদের বার হতে আবার মধ্যরাতে অবৈধ চোলাই মদসহ নানারকম মাদক পাচার হয় চট্টগ্রামের বিভিন্ন অঞ্চলে।স্থানীয় এলাকাবাসী উক্ত মদের বার হতে এরুপ মাদক পাচারকালে মাদকসহ বেশ কয়েকটি সিএনজি টেক্সী আটক করে পুলিশের হাতে তুলে দেন।তাছাড়া ওই মদের বারে সারাদিন রাত তথা ২৪ ঘন্টা ব্যাপী মাদকসেবীদের হৈ-হুল্লোড়,চিৎকার ও মাতলামীর কারনে এলাকার লোকজনের জীবনযাত্রা অনেকটা স্থবির হয়ে পড়েছে।ওই এলাকার মাদক ব্যবসায়ীরা এতটাই প্রভাবশালী ও উচ্চ পর্যায়ের ব্যক্তিবর্গের ছত্রছায়ায় থাকে যার দরুন এই সব অবৈধ মাদক ব্যবসার ব্যাপারে ভয়েই এলাকাবাসী কোন প্রতিবাদ করতে সাহস পায় না।তথাপিও মাদক ব্যবসায়ীদের এমন রমরমা ব্যবসায় অতিষ্ঠ হয়ে ও ২৪ ঘন্টাব্যাপী মাদকের এমন হরহামেশা বিকিকিনি নিয়ে শেষমেশ বাধ্য হয়েই এলাকাবাসী একাধিকবার বিভিন্ন মানববন্ধন ও প্রশাসনের বিভিন্ন পর্যায়ে স্মারকলিপি প্রদান করা সত্বেও এখনো বহাল তবিয়তে তাদের অবৈধ ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে মাদকব্যবসায়ীরা।মাননীয় প্রধানমন্ত্রী মাদকের ব্যাপারে এতটাই কঠোর যে,মাদক ব্যবসায়ী যতই প্রভাবশালী ব্যক্তি হোক না কেন,এই ব্যাপারে কাউকে কোন প্রকার ছাড় দেওয়া হবে না এমন ঘোষণা দেওয়ার পর যেখানে মাদক নির্মূলে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে র‌্যাব,পুলিশ সহ বিশেষ যৌথবাহিনি সারাদেশে কঠোর অভিজান পরিচালনা করছে,সেই সময়ে চট্টগ্রাম শহরের কোতোয়ালি থানাধীন ৩৪ নং পাথরঘাটার ফিসারিঘাট এলাকায় এভাবে প্রকাশ্যে মাদক বেচাকেনা ও মাদকের অভয়ারণ্যে পরিণত হওয়াটা যেন মাদক নির্মুলে পরিচালিত কঠোর অভিজানকে বৃদ্ধাঙ্গুলি প্রদর্শনের নামান্তর।এই ব্যাপারে স্থানীয় এলাকাবাসী ৩৪ নং পাথরঘাটা ওয়ার্ডকে মাদকমুক্ত গঠনে প্রশাসনিক পদক্ষেপ নিতে আইনশৃংখলা বাহিনীসহ স্থানীয় কোতোয়ালি থানার সহযোগিতা কামনা করেন।

Please Share This Post in Your Social Media

কপিরাইটঃ ২০১৬ দৈনিক অন্যদিগন্ত এর সকল স্বত্ব সংরক্ষিত।
Design & Developed BY Seskhobor.Com
Shares
CrestaProject