August 26, 2019, 1:19 am

পলাশে নাতিকে বিক্রি করে হারানোর নাটক সাজালেন নানি

আল আমিন মুন্সী ॥

নরসিংদীর পলাশে সাড়ে তিন বছরের এক শিশুকে হারানোর নাটক সাজিয়ে ১২ হাজার টাকায় বিক্রির অভিযোগে নানিকে আটক করেছে পুলিশ। এসময় তার দেওয়া তথ্যমতে আজ মঙ্গলবার সকালে গাজীপুরের কাপাসিয়ার দক্ষিণ গাও গ্রাম থেকে শিশু তাওহিদকে উদ্ধার করে পলাশ থানা পুলিশ। পলাশ থানা পুলিশ জানায়, উপজেলার ঘোড়াশাল পৌর এলাকার বালুচর পাড়া নামক গ্রামের নান্নু মিয়ার মেয়ে রেক্সোনা গত তিন মাস আগে গাজীপুরের কালীগঞ্জ উপজেলার জামালপুর গ্রামের হতদরিদ্র আলাউদ্দিনের কাছ থেকে তাওহিদ নামের ওই শিশুটিকে পালক আনে।পরে গত রমজান ঈদের ১০ দিন পর শিশু তাওহিদকে রেক্সোনা তার মা-বাবার কাছে রেখে সাতক্ষীরা তার স্বামীর বাড়িতে চলে গেলে রেক্সোনার মা-বাবা শিশুটিকে লালন-পালন করতে থাকে। এ দিকে গত রোববার সন্ধ্যায় রেক্সোনার বাবা নান্নু মিয়া পলাশ থানায় একটি সাধারণ ডাইরি করে। এতে উল্লেখ করে, শিশু তাওহিদকে রোববার বিকেলে থেকে খুজে পাওয়া যাচ্ছে না। সোমবার দিনব্যাপী এলাকা জুড়ে শিশু তাওহিদের সন্ধান চেয়ে মাইকিং করানো হয়। এদিকে থানার এসআই সুমন মিয়া শিশু তাওহিদ হারানোর বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে তদন্তে নামে। পরে তদন্তকালে রেক্সোনার মা রানু বেগম (৫২)কে সন্দেহ হলে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তাকে আটক করে। দীর্ঘক্ষণ জিজ্ঞাসাবাদের পর রানু বেগম শিশু তাওহিদকে ১২ হাজার টাকায় গাজীপুরের কাপাসিয়ার দক্ষিণ গাও গ্রামের নিঃসন্তান বাবুল মিয়ার কাছে বিক্রি করে দেওয়ার কথা স্বীকার করে। পরে আজ মঙ্গলবার সকালে পলাশ থানা পুলিশ কাপাসিয়া থেকে শিশুটিকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। এ ব্যাপারে পলাশ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ মো. নাসির উদ্দিন জানান, শিশু তাওহিদকে উদ্ধার করা হয়েছে। অভিযুক্ত রানু বেগমের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

Please Share This Post in Your Social Media

কপিরাইটঃ ২০১৬ দৈনিক অন্যদিগন্ত এর সকল স্বত্ব সংরক্ষিত।
Design & Developed BY Mostafijar Rahman
Shares
CrestaProject