দেশবিরোধী চুক্তি আড়াল করতেই 'সম্রাট নাটক': রিজভী | অন্যদিগন্ত

শনিবার, ১৯ অক্টোবর ২০১৯, ০৫:২৮ পূর্বাহ্ন

দেশবিরোধী চুক্তি আড়াল করতেই ‘সম্রাট নাটক’: রিজভী

অন্যদিগন্ত প্রতিবেদক ।।

ভারতের সঙ্গে দেশবিরোধী চুক্তিকে জনগণের কাছ থেকে আড়াল করতে যুবলীগ নেতা ইসমাইল হোসেন চৌধুরী সম্রাটকে গ্রেফতারের নাটক সাজানো হয়েছে। এমন মন্তব্য বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

আজ (রোববার) সকালে রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ মন্তব্য করেন।

রিজভী বলেন, ওবায়দুল কাদের সাহেব বলেছিলেন, চমক দেখানো হবে। এসব নাটক প্রতিনিয়ত চলছে। সরকার দেশবিরোধী যে চুক্তিগুলো করেছে, সেখান থেকে মানুষের দৃষ্টিকে আড়াল করার জন্যই সম্রাটকে এতদিন আড়ালে রেখেছিল। এখন প্রকাশ করার মানে মানুষ যেন এই চুক্তির বিষয়ে কথা না বলে অথবা মানুষের দৃষ্টি যেন অন্য দিকে চলে যায়।

তিনি আরও বলেন, ভারতের সঙ্গে সরকার কী কী চুক্তি করেছে, তা জানার অধিকার দেশের জনগণের অবশ্যই রয়েছে। তা দেশের মানুষ জানতে চায়। সংবিধানই জনগণকে সে অধিকার দিয়েছে।

এবারের সফরে ফেনী নদীর পানিসহ বিভিন্ন ধরনের দেশবিরোধী চুক্তি করা হয়েছে দাবি করে বিএনপির এ নেতা বলেন, আমরা আগেই বলেছিলাম, প্রধানমন্ত্রী যতবার ভারত যান ততবারই কেবল দিয়ে আসেন। আনতে পারেন না কিছুই। ফারাক্কা চালুর অনুমতি দিয়েছিল আওয়ামী লীগ সরকার। এবার ফেনী নদীর পানি দিয়ে দেওয়া হয়েছে। বিএনপি এসব চুক্তির তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রীর এবারের সফরে দেশের মানুষ আশা করেছিল, তিস্তার পানি বণ্টন চুক্তি, বাণিজ্য ভারসাম্য এবং সীমান্ত হত্যা সমস্যার সমাধান হবে। কিন্তু চুক্তিপত্র ও সমঝোতাগুলোতে এই প্রসঙ্গে কোনো টু শব্দও আমরা দেখলাম না। এসব নিয়ে কোনো কার্যকর আলোচনাই হলো না। আর এর বিপরীতে গত ১২ বছরে যা দেয়া হয়েছে, তাতে বাংলাদেশের সার্বভৌমত্বের কিছু অবশিষ্ট থাকল না।

দেশ বিক্রি করে হলেও শেখ হাসিনার ক্ষমতা প্রয়োজন বলে দাবি করে বিএনপির এই নেতা বলেন, সব দেশের প্রধানমন্ত্রীরা বিদেশ সফরে কিছু না কিছু আনতে যান। আর আমাদের প্রধানমন্ত্রী ভারত সফরে যান সবকিছু উজাড় করে দিয়ে আসতে। তার বদলে তিনি পেয়েছেন ক্ষমতার মসনদে থাকার গ্যারান্টি আর ‘ঠাকুর শান্তি পুরস্কার’। আর বাংলাদেশের জনগণের বদনসিব, বিনিময়ে তারা কিছুই পায়নি।

প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগ দাবি করে বিএনপির এ নেতা বলেন, প্রধানমন্ত্রী তার সাংবিধানিক শপথ ভঙ্গ করেছেন। তিনি দেশের স্বার্থ রক্ষার শপথ ভঙ্গের প্রমাণ দিয়েছেন। নিজ দেশের চেয়ে বিদেশি রাষ্ট্রের স্বার্থ রক্ষা করেছেন। তাই তিনি প্রধানমন্ত্রী পদে থাকার সাংবিধানিক সব অধিকার হারিয়েছেন।

রংপুর-৩ আসনের উপ নির্বাচন প্রসঙ্গে রিজভী বলেন, নির্বাচনের ফলে প্রমাণ হয়েছে- নির্বাচন কমিশন ব্যর্থ। প্রধান নির্বাচন কমিশনার মাছ ধরছেন। শতকরা ৩-৪ শতাংশ লোক ভোট দিয়েছে। কিন্তু দেখানো হয়েছে ২০-২২ শতাংশ। বিএনপি এই নির্বাচনকে প্রত্যাখ্যান করেছে।

Print Friendly, PDF & Email

Please Share This Post in Your Social Media


কপিরাইটঃ ২০১৬ দৈনিক অন্যদিগন্ত এর সকল স্বত্ব সংরক্ষিত।
Design & Developed BY Seskhobor.Com
Shares
CrestaProject