মঙ্গলবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২০, ১১:৩৮ পূর্বাহ্ন

হাটহাজারীতে মিথ্যা গুজব ছড়িয়ে উচ্ছেদ অভিযানে বাধা

মাহমুদ আল আজাদ, হাটহাজারী (চট্টগ্রাম)প্রতিনিধি ॥

মিথ্যা গুজব ছড়িয়ে সরকারী জায়গা উচ্ছেদ অভিযানে বাধা প্রদানের অভিযোগ উঠেছে কথিত মুরশেদ নামের এক ব্যক্তির বিরোদ্ধে। গতকাল সোমবার (২০জানুয়ারী) চট্টগ্রাম -রাঙ্গামাটি মহাসড়কের যানজট ব্যস্ত এলাকার বাসষ্ট্যান্ড জিরো পয়েন্টের সড়ক দখল করে স্থাপনা নির্মাণ করেছিল কয়েক যোগ পূর্বে।যার কারনে বাসস্টেশন জিরো পয়েন্টে নিত্যদিন যানজট লেগেই থাকে, ভোগান্তি চরমে গিয়ে পৌছেছে যাত্রী ও পথচারীদের। তারই প্রেক্ষিতে হাটহাজারী পৌরসদরের বাসষ্ট্যান্ড গোলচত্বর এলাকায় সড়ক ও জনপদ (সওজ) বিভাগের জায়গা বেআইনি ভাবে দখল হওয়ায় অবৈধ স্থাপনা ও দোকানপাটের সংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় মহাসড়কটি সংকীর্ন হয়ে এসেছিল।

পৌরসদরকে যানজটমুক্ত করতে গত ১৩ জানুয়ারি থেকে চট্টগ্রাম-রাঙ্গামাটি-খাগড়াছড়ি মহাসড়কের পাশে অবৈধ দখলে থাকা সরকারি জায়গা উদ্ধার করতে শুরু করেন হাটহাজারী উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রুহুল আমীন। এরই ধরাবাহিকতায় গত দুই দিনে রাঙ্গামাটি মহাসড়কের পাশে বাসষ্ট্যান্ড গোলচত্বর এলাকায় দখলে থাকা অবৈধ ৮ স্থাপনা ও দোকানপাট উচ্ছেদ করেন। এ উচ্ছেদ অভিযান পরিচালিত হওয়ায় হাটহাজারী বাসষ্ট্যান্ড গোলচত্বর এলাকা এখন যানজটমুক্ত এলাকা পরিণত হওয়ায় হাটহাজারীবাসী ইউএনও রুহুল আমীনকে সাধুবাদ জানানিয়েছেন।

কিন্তু এরই সুবাধে গতকাল সন্ধ্যায় উচ্ছেদ অভিযানের পরে উচ্ছেদ হওয়া এক দোকানের মালপত্র বের করার সময় এক কাজের লোক ইটের খোয়ায় আহত হয় অসাবধানতাবস্থার কারনে। দ্রুততম তাকে স্থানীয় লোকজন প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কিছুটা রক্ষক্ষরণ হলে তাকে চমেকে রেফার করে। এরই মধ্যে বাসস্টেশন এলাকায় ইউএনওর উচ্ছেদ অভিযানে নিরিহ লোক নিহত হয়েছে বলে গুজব ছড়িয়ে দেয়। এরই সুবাধে কিছু সুযোগ সন্ধানী কুচক্রী গোষ্ঠি উচ্ছেদ অভিযানকে ও ইউএনওন কাজকে বন্ধ করে দিতে লোকজন জড়ো করে। খবর পেয়ে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্তিতি নিয়ন্ত্রনে আনে ও আহত ব্যক্তির খোজ খবর নেয়।তবে সকালেই আহত ব্যক্তিকে চমেক থেকে রিলিজ করে দিলে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ে সাক্ষাত করতে আসেন। কিন্তু জনগনের স্বার্থে যানজট নিরসনে কাজ করায় ইউএনও রুহুল আমীনের বিরুদ্ধে মিথ্যা অপবাধ দিয়ে গুজব রটানো হচ্ছে। যা অত্যান্ত দুঃখ জনক বলেও হাটহাজারী জনগন ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

এ বিষয়ে ইউএনও রুহুল আমীন হাটহাজারীবাসীর উদ্দেশ্যে বলেন, সরকারি জায়গা উদ্ধার করে বাসষ্ট্যান্ড যানজট নিরসনে সাহসিকতার সাথে কাজ করে যাচ্ছি। এর ফল ভোগ করবে হাটহাজারীবাসি, সরকার না। তাই আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা অপবাধ দিয়ে গুজব রটানো হচ্ছে। যা মিথ্যা, বানোয়াট। আর মিথ্যা গুজব রটিয়ে আমাকে দমানো যাবেনা। মিথ্যা গুজবে কান দেবেন না হাটহাজারীর জনগন বলেও তিনি জানান। তিনি গুজব ছড়ানো ব্যক্তিকেও ক্ষমা করে দিয়েছেন বলেও যোগ করেন।

উল্লেখ্যঃ- গত দুই দিনে সড়ক ও জনপদ বিভাগের ২কোটি টাকার সম্পত্তি উদ্ধার করা হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email

Please Share This Post in Your Social Media

কপিরাইটঃ ২০১৬ দৈনিক অন্যদিগন্ত এর সকল স্বত্ব সংরক্ষিত।
Design & Developed BY Hostitbd.Com
Shares
CrestaProject