মঙ্গলবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২০, ১১:২৬ পূর্বাহ্ন

সিনেটে ট্রাম্পের অভিশংসন শুনানি শুরু

অন্যদিগন্ত ডেস্ক ॥

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পার্লামেন্টের উচ্চকক্ষ সিনেটে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের অভিশংসনের শুনানি শুরু হয়েছে। এরই মধ্যে শুনানি দ্রুত শেষ করার প্রস্তাবের পক্ষে সমর্থন দিয়েছেন সিনেটে সংখ্যাগরিষ্ঠ দলের নেতা মিচ ম্যাককনেল।

বিচার প্রক্রিয়ার শুরুতে ডেমোক্রাটরা অভিশংসনের পক্ষে নতুন প্রমাণ সংগ্রহে বারবার প্রচেষ্টা চালালেও তা নাকচ করেছে সিনেট। ডেমোক্রাটরা বলছেন, এটা ধামাচাপা দেয়ার ঘটনা ছাড়া আর কিছুই হবে না।

যদিও সিনেটররা নিরপেক্ষ বিচারক হিসেবে দায়িত্ব পালনের অঙ্গীকার করেছেন। মার্কিন প্রধান বিচারপতি জন রবার্টসের নেতৃত্বে এই বিচার প্রক্রিয়ায় সপ্তাহে ছয়দিন ছয় ঘণ্টা করে শুনানি চলবে।

অভিশংসন বিচারে নথি এবং প্রমাণ সংগ্রহের প্রচেষ্টায় মঙ্গলবার ডেমোক্র্যাটরা তিনবার সিনেটের ভোটে প্রত্যাখ্যাত হয়। দলীয় ভোট অনুসারে এর বিপক্ষে ৫৩টি এবং পক্ষে ৪৭টি ভোট পড়ে।

ইউক্রেন এবং ট্রাম্প সম্পর্কিত হোয়াইট হাউসের ফাইল উপস্থাপন করতে ডেমোক্র্যাটিক নেতা চাক শুমারের প্রস্তাবও বাতিল করেন সিনেটররা। এছাড়া মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এবং হোয়াইট হাউসের বাজেট দপ্তরের রেকর্ড এবং নথি প্রকাশের দাবি জানিয়ে আনা একটি প্রস্তাবও বাতিল করে দেয়া হয়।

অভিশংসন বিচারের নেতৃত্বে থাকা হাউস ডেমোক্রাট অ্যাডাম শিফ তার উদ্বোধনী বিবৃতিতে বলেন, ‘বেশিরভাগ আমেরিকান বিশ্বাস করে না যে ন্যায় বিচার হবে। তারা বিশ্বাস করে না যে সেনেট নিরপেক্ষ হবে। তারা বিশ্বাস করে যে ফলাফল পূর্ব নির্ধারিত।’

এর আগে প্রেসিডেন্টের আইনজীবীদের সমর্থনে, ম্যাককনেল প্রাথমিক যুক্তি-তর্ক সংক্ষিপ্ত করে তিনদিনের পরিবর্তে দুইদিনে শেষ করার পরিকল্পনা করেছিলেন। কিন্তু রিপাবলিকানসহ অন্য সিনেটরদের সঙ্গে এক বৈঠকের পর মঙ্গলবার প্রাথমিক যুক্তিতর্ক তিন দিনেই শেষ করার পক্ষে মত দেন ম্যাককনেল।

হোয়াইট হাউসের কাউন্সেল এবং প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের প্রধান আইনজীবী বলেন, এটা সুষ্ঠু প্রক্রিয়া। এখানে অন্য কোন বিষয় নেই’। তবে পদ্ধতিগত জটিলতা আরো কয়েক দিন থাকবে বলে মনে করা হচ্ছে।

জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ট্রাম্পের বর্তমান ও সাবেক প্রশাসন সদস্যদের যেমন সাবেক নিরাপত্তা উপদেষ্টা জন বল্টনের উপস্থিতির দাবি জানিয়েছে ডেমোক্রাটরা। কিন্তু রিপাবলিকানরা সাক্ষী এবং নথির বিষয়ে যুক্তি-তর্ক উপস্থাপন বিচার প্রক্রিয়ায় আরো পরের দিকে নিয়ে যাওয়ার কথা বলছে।

ট্রাম্পের বিরুদ্ধে ক্ষমতার অপব্যবহার এবং কংগ্রেসের তদন্তে বাধা দেয়ার অভিযোগ এনেছেন ডেমোক্র্যাটরা। এই অভিযোগে মার্কিন প্রতিনিধি পরিষদে অভিশংসিত হয়েছেন ট্রাম্প। তবে সব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে প্রতিনিধি পরিষদে অভিশংসনের শিকার হওয়া তৃতীয় প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

Print Friendly, PDF & Email

Please Share This Post in Your Social Media

কপিরাইটঃ ২০১৬ দৈনিক অন্যদিগন্ত এর সকল স্বত্ব সংরক্ষিত।
Design & Developed BY Hostitbd.Com
Shares
CrestaProject