সোমবার, ০৬ এপ্রিল ২০২০, ০৯:১৫ অপরাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ
 সিদ্ধিরগঞ্জে ফার্মেসী খোলা রাখায় মালিকের উপর হামলা, টাকা লুট প্রতি উপজেলার দুজনের নমুনা পরীক্ষার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর আবু মোহাম্মদ মহসিন চৌধুরী! একজন একনিষ্ঠ সমাজ হিতৈষীর নিরবে সমাজ সেবার কীর্তিকলাপ সাংবাদিক সাগর চৌধুরীর উপর সন্ত্রাসী হামলা! বুড়িচংয়ে বিল্লাল হত্যায় সন্দেহভাজন কিশোর আটক বুড়িচংয়ে গ্যারেজ ভাড়া,সিএনজি ও অটোর ভাড়া কিছুই নিবেনা কবির হোসেন বুড়িচংয়ে বিনা মূল্যে মাস্ক ও করোনা সচেতনতার লিফলেট বিতরণ পিপিই নাই প্রাইভেট চিকিৎসাও নাই;রোগীরা যাবে কোথায়? -অ্যাডভোকেট শেখ ইফতেখার সাইমুল চৌধুরী সবকিছু নিয়ে সরকার জনগণের পাশে আছে : প্রধানমন্ত্রী দেশের এই মহামারী দুর্যোগে ইতালিতে বসবাসরত পাপিয়া নামের এক বাংলাদেশী তার বাংলাদেশের বাড়ির ভাড়া মওকুফ করে দিয়েছেন।

বিটিআরসিকে ১০০০ কোটি টাকা দিল গ্রামীণফোন

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥

আদালতের নির্দেশনা অনুযায়ী বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনকে (বিটিআরসি) এক হাজার কোটি টাকা পরিশোধ করেছে গ্রামীণফোন।

রোববার (২৩ ফেব্রুয়ারি) গ্রামীণফোনের পক্ষ থেকে এই টাকা পরিশোধ করা হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেন ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার। মন্ত্রী তার ফেসবুকের ভেরিফায়েড পেজে এক স্ট্যাটাসে লিখেছেন, সুখবরটা পেলামই। গ্রামীণফোন ১ হাজার কোটি টাকা প্রদান করেছে।

এর আগে এক বিবৃতিতে গ্রামীণফোন জানিয়েছিল, রোববার তারা আদালতের নির্দেশনা মেনে বিটিআরসিকে এক হাজার কোটি টাকা দেবে।

এরই অংশ হিসেবে রোববার বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে গ্রামীণফোনের পক্ষ থেকে চার সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল বিটিআরসিতে গিয়ে এক হাজার কোটি টাকার চেক হস্তান্তর করে। প্রতিনিধি দলের নেতৃত্বে ছিলেন গ্রামীণফোনের হেড অব রেগুলেটরি সাদাত হোসেন।

এর আগে গত বৃহস্পতিবার (২০ ফেব্রুয়ারি) সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ বিটিআরসির নিরীক্ষা দাবির সাড়ে ১২ হাজার কোটি টাকার মধ্যে গ্রামীণফোনকে সোমবারের (২৪ ফেব্রুয়ারি) মধ্যে ১০০০ কোটি টাকা পরিশোধ করার নির্দেশ দেন। গ্রামীণফোনের করা রিভিউ আবেদনের শুনানি নিয়ে এ আদেশ দেন প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বাধীন সাত বিচারকের আপিল বিভাগের বেঞ্চ।

বিটিআরসি বলে আসছে, গ্রামীণফোনের কাছে নিরীক্ষা আপত্তির ১২ হাজার ৫৭৯ কোটি ৯৫ লাখ টাকার পাশাপাশি রবির কাছে ৮৬৭ কোটি ২৩ লাখ টাকা পাওনা রয়েছে তাদের। কয়েক দফা চেষ্টায় সেই টাকা আদায় করতে না পেরে বিটিআরসি লাইসেন্স বাতিলের হুমকি দিয়ে দুই অপারেটরকে নোটিশ পাঠায়।

বিটিআরসি সালিশের মাধ্যমে বিষয়টি নিষ্পত্তিতে রাজি না হওয়ায় দুই অপারেটর আদালতের দ্বারস্থ হয়। পরে অর্থমন্ত্রীর উদ্যোগে গ্রামীণফোন ও বিটিআরসির কর্মকর্তাদের মধ্যে দুই দফা বৈঠক হলেও তাতে সফলতা আসেনি।

গ্রামীণফোনের আবেদনে গত ১৭ অক্টোবর বিটিআরসির নিরীক্ষা আপত্তি দাবির নোটিশের ওপর দুই মাসের নিষেধাজ্ঞা দেন হাইকোর্ট। বিটিআরসি লিভ টু আপিল করলে আপিল বিভাগ ২৪ নভেম্বর গ্রামীণফোনকে দুই হাজার কোটি টাকা দিতে নির্দেশ দেন।

Please Share This Post in Your Social Media

কপিরাইটঃ ২০১৬ দৈনিক অন্যদিগন্ত এর সকল স্বত্ব সংরক্ষিত।
Design & Developed BY It Host Seba Mobile: 01625324144