সোমবার, ০৬ এপ্রিল ২০২০, ০৯:৩৭ অপরাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ
 সিদ্ধিরগঞ্জে ফার্মেসী খোলা রাখায় মালিকের উপর হামলা, টাকা লুট প্রতি উপজেলার দুজনের নমুনা পরীক্ষার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর আবু মোহাম্মদ মহসিন চৌধুরী! একজন একনিষ্ঠ সমাজ হিতৈষীর নিরবে সমাজ সেবার কীর্তিকলাপ সাংবাদিক সাগর চৌধুরীর উপর সন্ত্রাসী হামলা! বুড়িচংয়ে বিল্লাল হত্যায় সন্দেহভাজন কিশোর আটক বুড়িচংয়ে গ্যারেজ ভাড়া,সিএনজি ও অটোর ভাড়া কিছুই নিবেনা কবির হোসেন বুড়িচংয়ে বিনা মূল্যে মাস্ক ও করোনা সচেতনতার লিফলেট বিতরণ পিপিই নাই প্রাইভেট চিকিৎসাও নাই;রোগীরা যাবে কোথায়? -অ্যাডভোকেট শেখ ইফতেখার সাইমুল চৌধুরী সবকিছু নিয়ে সরকার জনগণের পাশে আছে : প্রধানমন্ত্রী দেশের এই মহামারী দুর্যোগে ইতালিতে বসবাসরত পাপিয়া নামের এক বাংলাদেশী তার বাংলাদেশের বাড়ির ভাড়া মওকুফ করে দিয়েছেন।

এবার হজ প্যাকেজ বেড়ে তিন, দুটিতে খরচ বেড়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥

চলতি বছর সরকারি ব্যবস্থাপনায় একটি বাড়িয়ে তিনটি প্যাকেজের মাধ্যমে হজ পালনের সুযোগ রেখে ‘হজ প্যাকেজ, ১৪৪১ হিজরি/২০২০ খ্রিষ্টাব্দ’ এর খসড়া অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা।এবার হজ পালনে প্যাকেজ-১ এ ৪ লাখ ২৫ হাজার টাকা এবং প্যাকেজ-২ এ ৩ লাখ ৬০ হাজার টাকা খরচ করতে হবে। আর প্রথমবারের মতো প্যাকেজে-৩ এ ব্যয় ধরা হয়েছে ৩ লাখ ১৫ হাজার টাকা।

সোমবার প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে মন্ত্রিসভার বৈঠকে হজ প্যাকেজ অনুমোদন দেয়া হয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন। বৈঠক শেষে সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম প্রেস ব্রিফিংয়ে এ অনুমোদনের কথা জানান।

গত হজের তুলনায় প্যাকেজ-১ এ খরচ বেড়েছে ৬ হাজার ৫০০ টাকা ও প্যাকেজ-২ এ বেড়েছে ১৬ হাজার টাকা।

গত হজে প্যাকেজ-১ এর মাধ্যমে হজ পালনে খরচ হয় ৪ লাখ ১৮ হাজার ৫০০ টাকা। অপরদিকে প্যাকেজ-২ এর মাধ্যমে খরচ হয় ৩ লাখ ৪৪ হাজার টাকা।

চাঁদ দেখা সাপেক্ষে চলতি বছরের ৩১ জুলাই (৯ জিলহ্জ) পবিত্র হজ অনুষ্ঠিত হবে। সৌদি আরবের সঙ্গে হজচুক্তি অনুযায়ী, চলতি বছর সরকারি ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ১ লাখ ৩৭ হাজার ১৯৮ জন হজযাত্রী হজ করার সুযোগ পাবেন। এর মধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় ১৭ হাজার ১৯৮ এবং বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ১ লাখ ২০ হাজার জন হজ করতে পারবেন।

আবাসনের দূরত্ব অনুযায়ী হজ প্যাকেজগুলো করা হয়েছে জানিয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, প্যাকেজ-১ এর যাত্রীরা মসজিদুল হারাম চত্বরের সীমানা থেকে সর্বোচ্চ ৭০০ মিটারের মধ্যে, প্যাকেজ-২ এর যাত্রীরা দেড় হাজার মিটারের মধ্যে এবং প্যাকেজ-৩ এর যাত্রীরা মসজিদুল হারাম চত্বরের সীমানা থেকে দেড় হাজার মিটারের বেশি দূরত্বে অবস্থান করবেন।

হজযাত্রীদের থাকা, খাওয়া, বিমানভাড়াসহ আনুষঙ্গিক সব খরচ ধরেই হজ প্যাকেজ ঘোষণা করা হয়েছে বলেও জানান মন্ত্রিপরিষদ সচিব।

খন্দকার আনোয়ারুল বলেন, সরকারি ব্যবস্থাপনার প্যাকেজ তিনটির সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে হজ এজেন্সিগুলো একাধিক প্যাকেজ ঘোষণা করতে পারবে।

তিনি বলেন, বিমানের টিকিট বাবদ নেয়া অর্থ হজ এজেন্সি ব্যাংক থেকে উঠাতে পারবে না। হজযাত্রীর সংখ্যা অনুযায়ী সরাসরি পে-অর্ডারের মাধ্যমে এয়ারলাইন্সকে পরিশোধ করতে হবে এবং সৌদি আরবের বিভিন্ন সার্ভিস চার্জ ও পরিবহন বাবদ নেয়া অর্থ আইবিএএন (ইন্টারন্যাশনাল ব্যাংক অ্যাকাউন্ট নাম্বার) এর মাধ্যমে সৌদি আরবে পাঠানো ছাড়া এজেন্সি তা উত্তোলন করতে পারবে না।

এবার শতভাগ হজযাত্রীর সৌদির আরবের প্রি-এরাইভাল ইমিগ্রেশন ঢাকার সম্পন্ন করার পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে জানিয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, ‘প্রত্যেক হজ এজেন্সি কমপক্ষে ১০০ জন এবং সর্বোচ্চ ৩০০ জন হজযাত্রী পাঠাতে পারবে। প্রতি ৪৪ জন হজযাত্রীর জন্য একজন করে গাইড রাখতে হবে।

কোরবানির অর্থ ইসলামি ডেভেলপমেন্ট ব্যাংকের মাধ্যমে পরিশোধ করতে সৌদি সরকার পরামর্শ দিয়েছে। এজন্য প্যাকেজ মূল্যের অতিরিক্ত ৫২৫ সৌদি রিয়ালের সমপরিমাণ অর্থাৎ ১২ হাজার ৭৫ টাকা সঙ্গে নিতে হবে।

বিমান বাংলাদেশ এবং সৌদিয়ার পাশাপাশি নাস এয়ারলাইন্সের মাধ্যমে এবার হজযাত্রী পরিবহন করা নিয়ে আলোচনা চলছে জানিয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, বিমান ভাড়া ১ লাখ ৩৮ হাজার টাকা নির্ধারণ করে দেয়া হয়েছে। গতবার একটা বিশেষ ছাড়ে ১০ হাজার টাকা কমানো হয়েছিল।

এবার সবগুলো হজ ফ্লাইট ডেডিকেটেড (শুধুই হজযাত্রী পরিবহনের ফ্লাইট) করতে আলোচনা চলছে বলেও জানান খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম।

Please Share This Post in Your Social Media

কপিরাইটঃ ২০১৬ দৈনিক অন্যদিগন্ত এর সকল স্বত্ব সংরক্ষিত।
Design & Developed BY It Host Seba Mobile: 01625324144